TipsRain.Com Login Sign Up

Quick Links

Facebook Page
Youtube Channel

ধূমপানজনিত ঠোঁটের কালচে দাগ দূর করার উপায়। জেনে নিন কাজে লাগবে।।

In LifeStyle - 22 November, 2016

[img=355]

সিগারেট থেকে হওয়া ঠোঁটের কালো দাগ দূর করাটা
প্রায় দুঃসাধ্য একটি ব্যাপার। এর জন্য প্রথমত
আপনার ধূমপান করা ত্যাগ করতে হবে। অনেকের ঠোঁট
বংশগত কারণেই কালচে হয়ে থাকে। তবে সূর্যের
ক্ষতিকর রশ্মি, ধূমপান, অ্যালার্জি, অতিরিক্ত
ক্যাফেইন গ্রহণ, হরমন সমস্যা ইত্যাদি কারণেও ঠোঁটের
রং কালচে হয়ে যায়। তাছাড়া নিয়ম করে যত্ন না
নিলেও ঠোঁট কালো হয়ে যেতে পারে।
অাসুন,জেনে নেয়া যাক ঠোঁটের কালো দাগ দূর করতে
যা করবেন।

১। একটি পাতলা লেবুর টুকরোর ওপরে খানিকটা চিনি ছিটিয়ে প্রতিদিন ঠোঁটে ঘষুন। চিনি ঠোঁটের মরা
চামড়াগুলোকে পরিষ্কার করতে এবং লেবু সূর্যের ফলে কালো হয়ে যাওয়া ঠোঁটের চামড়াকে উজ্জবল করতে সাহায্য করে।

২। মধুর সাথে চিনি এবং কয়েক ফোঁটা অলিভ অয়েল
মিশিয়ে ১০ মিনিট ঠোঁটে ঘষুন।

৩। ঠোঁটকে উজ্জ্বল করতে ল্যাক্টিক এ্যাসিড খুব উপকারী। নিয়মিত দুধ খাবার সাথে সাথে খানিকটা দুধ তুলোয় করে ঠোঁটে ঘষে নিন। শুষ্ক চামড়াকে তুলে ফেলার মাধ্যমে দুধ ঠোঁটের কালো হওয়াকেও প্রতিরোধ করে।

৪। গোলাপের পাপড়িও ঠোঁটের গোলাপী ভাব আনতে সাহায্য করে। এজন্য গোলাপের পাপড়ি দুধের মধ্যে রেখে তাতে মধু ও গ্লিসারিন মিশিয়ে নিন। প্রলেপটি ১৫ মিনিট ঠোঁটে মাখুন। এরপর দুধ দিয়ে ঠোঁটকে মুছে নিন। প্রতিদিন এই প্রলেপটির ব্যবহার আপনার ঠোঁটকে করে তুলবে আকর্ষনীয়।

৫। লেবুর ভেতরের এসিড ঠোঁটের শুষ্ক চামড়াকে তুলে ফেলতে সাহায্য করে। তবে লেবুর রসের সাথে খানিকটা চিনি ও মধু মিশিয়ে ঘরে বসেই নিতে পারেন ঠোঁটের পুরোপুরি যত্ন। প্রলেপটি মাখার একঘন্টা পর ধুয়ে নিন।

৬। লেবুর রসের সাথে খানিকটা গ্লিসারিন মিশিয়ে ঠোঁটে মাখুন। কয়েকদিনেই আপনি পাবেন চমত্কার ফলাফল।

৭। বাদামের তেল, মধু ও চিনির মিশ্রন করুন। প্যাকটি আপনার ঠোঁটকে কেবল সুন্দরই করবে না, কোমলতাও
বাড়াবে।

৮। ঘুমানোর আগে ঠোঁটে পালং পাতা ঘষে নিন। সাথে রাখতে পারেন জাফরানও। এই দুটি সহজলভ্য উপাদানের
নিয়মিত ব্যবহার আপনার শুষ্ক ঠোঁটকে সারিয়ে তুলবে এক নিমিষেই।

৯। কমলালেবু খাবার সময় এর বীচিগুলোকে সংরক্ষণ করুন
এবং নিয়মিত ঠোঁটকে এগুলোর দ্বারা পরিষ্কার করুন।

১০। প্রতিদিন টমেটো পেষ্ট করে ঠোঁটে মাখুন। আপনার ঠোঁট হবে উজ্জ্বল।

১১। শশার রসও ঠোঁটের কালো হওয়কে প্রতিরোধ করে।ফলাফল পেতে প্রতিদিন অন্তত ৫ মিনিট শসার রস
ঠোঁটে ঘষুন।

[b]মনে রাখবেন- – ধুমপান ঠোঁটের জন্যে ক্ষতিকর। তাই ধুমপান থেকে বিরত থাকুন।[/b]

– রাতে ঘুমাতে যাবার আগে লিপস্টিক তুলে ফেলতে ভুলবেননা।

– জিহ্বা দিয়ে অবিরত ঠোঁট ভেজানো বন্ধ করুন।

এতে সাময়িক আরাম মিললেও আসলে ঠোঁটের সৌন্দর্য হানি হয়। বদলে ব্যবহার করুন লিপজেল।

– ফাস্টফুডের পরিবর্তে শাক-সব্জী খাওয়ার পরিমাণ বাড়ান।

– চা এবং কফির পরিবর্তে পানি খাবার পরিমাণ বাড়ান। প্রচুর পরিমাণে পানি আপনার ঠোঁটকে রাখতে পারে সুস্থ ও স্বাভাবিক সৌন্দর্যময়।

আশা করি বুজতে পারছেন।

[end]

Linkedin Google+

WHATSAPP

MESSAGE
Posts: 160
Bio: নিজেকে নিয়ে বলার মতো তেমন কিছুই নাই তবে প্রযুক্তি কে আমার ভালো লাগে তাই নিজেকে সবার মাঝে বিলিয়ে দেয়া।


Leave a Reply

You must be Login or Register to post comment.

Related Posts

পান খাওয়া কতটা স্বাস্থ্যকর জেনে নিন এক্ষুনি……
জেনে নিন যে সব খাবারে মানবদেহে বিষক্রিয়ার সৃষ্টি হয়….!!
চুল পড়া সমস্যার সমাধানের কিছু কার্যকরি উপায় জেনে নিন হয়তো উপকারে লাগতে পারে।
দেখে নিন যে ৬ টি কারনে ধীরে ধীরে নস্ট হচ্ছে আপনার কীটনি ২ টা।
জেনে নিন সকালের নাস্তায় একটি কলা খাওয়ার ৫টি স্বাস্থ্য উপকারিতা!
মুখের কালো দাগ দূর করবেন যেভাবে কিছু ঘরোয়া উপায় জেনে নিন কাজে লাগতে পারে
কিটনিতে পাথর ভয় না পেয়ে এক্ষুনি এগুলো করুন ভালো থাকতে পারবেন।
জেনে নিন অ্যান্টিবায়োটিকের কোর্স শেষ না করলে যা হতে পারে আপনার শরীরে
খাবার পর যে কাজগুলি ভুলেও করবেন না
প্রেমিকার রাগ ভাঙ্গাতে, কি করা চাই প্রেমিকের?